বৃহস্পতিবার , ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

লোহাগড়ায় বখাটেদের কুদৃষ্টি ও চক্রান্তে ভেঙ্গে যাচ্ছে গৃহবধু আফরোজার সংসার




প্রতিবেশী বখাটে এলাহী মোল্যা ও ভাসুর শরিফুল ইসলামের কুদৃষ্টি ও চক্রান্তে নড়াইলের লোহাগড়ার মাকড়াইল গ্রামের গৃহবধু আফরোজা বেগমের (২২) সংসার ভেঙ্গে যাবার উপক্রম হয়েছে। ওই চক্র ভুয়া তালাকনামা দেখিয়ে স্বামীর সংসার ছাড়তে বাধ্য করেছে ওই গৃহবধুকে। এ ঘটনায় আফরোজা খানম বাদী হয়ে নড়াইল আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

পারিবারিক ও মামলার সূত্রে জানা গেছে, শালনগর ইউনিয়নের শেখপাড়া বাতাসী গ্রামের আহাদ শেখের ছেলে সজীবুল ইসলামের সাথে মাকড়াইল গ্রামের আবুল কাশেম শেখের মেয়ে আফরোজার ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সুখের সংসার চলছিল। কিন্তু সে সুখে বাধ সাধেন প্রতিবেশী এলাহী মোল্যা ও ভাসুর শরিফুল।

ভূক্তভোগী নারী আফরোজা বেগম অভিযোগ করেন, বিয়ের আগে থেকেই প্রতিবেশী মাকড়াইল গ্রামের সোহরাব মোল্যার ছেলে এলাহী মোল্যা আমার উপর কুদৃষ্টি দিতো। তার কুপ্রস্তাবে রাজি হইনি বলে চক্রান্ত করে আমার শান্তির সংসারে অশান্তি ঢুকিয়ে দিয়েছে। বিয়ের পর ভাসুর শরিফুল ইসলামের কুদৃষ্টিও পড়ে আমার উপর।

পরিবারসহ গ্রামবাসীরা জানায়, দীর্ঘদিন যাবত ওই দুজন মিলে আফরোজাকে কুপ্রস্তাব দেয়াসহ উক্ত্যক্ত করে আসছিল। বিষয়টি আফরোজা তার স্বামী সজীবুল ইসলামকে জানালেও তার স্বামী বিষয়টি বিশ্বাস করতে চাননি। আফরোজা খানম নিরুপায় হয়ে নিজ মায়ের কাছে মোবাইল ফোনে ঘটনা খুলে বলেন। এরপর মা শ্বশুর বাড়ি থেকে তাকে নিজ বাড়িতে নিয়ে যান।

শ্বশুর বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে ফেরার ৪-৫ দিন পর ভাসুর শরিফুল ইসলাম ও প্রতিবেশী এলাহি মোল্যা গৃহবধু আফরোজার বাবা-মাকে জানায় তোমার মেয়ে আমার ভাইকে তালাক দিয়েছে। তারা একটি ভুয়া কাবিননামাও দেখিয়েছে।

আফরোজা বেগমের বাবা আবুল কাসেম শেখ ও মা সাজেদা বেগম অভিযোগ করেন, প্রতিবেশী লম্পট এলাহি মোল্যা, জয়নাল মোল্যাসহ কয়েকজনে আমার মেয়ের উপর কুদৃষ্টি দিয়েছে। সন্ধ্যা হলে বাথরুমের পাশে ওৎ পেতে থাকছে তারা। নানা হুমকি-ধমকি দিচ্ছে। লম্পটগুলো আমার মেয়ের শ্লীলতাহানীর চেষ্টা চালিয়েছে। এখন নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে আমার মেয়ে।

আফরোজা বেগম আরো অভিযোগ করেন, বিয়ের আগে থেকেই এলাহী মোল্যা আমার পিছে লাগতো। জোর করে শরিফুলের ঘরে নিয়ে এলাহী মোল্যা ও শরিফুল ইসলাম আমার শ্লীলতাহানী করেছে। রাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গেলেও ঘরের পাশে এলাহী মোল্যা ও জয়নাল ওৎ পেতে থাকছে। তারা আমাকে কুপ্রস্তাব দিচ্ছে। আমি বাবার বাড়িতে নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। আমরা গরীব মানুষ। এ ব্যাপারে আমি প্রশাসনের সহযোগিতা চাই। এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের বক্তব্য নিতে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত




ই-মেইলে সর্বশেষ সংবাদ

বিনামূল্যে সর্বশেষ সংবাদ সরাসরি আপনার ই-মেইলে পেতে আজই সাবস্ক্রাইব করুন!

তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক।
আমাদের গোপনীয়তার নীতি




এক ক্লিকে জেনে নিন বিভাগীয় খবর




করোনা তথ্য
দেশে আক্রান্ত
১৫,৭৮,৫৫০
৯ ডিসেম্বর, ২০২১
করোনা তথ্য
দেশে সুস্থ
১৫,৪৩,৪৯১
ডিসেম্বর ৯, ২০২১
করোনা তথ্য
দেশে মৃত্যু
২৮,০১৬
ডিসেম্বর ৯, ২০২১
করোনা তথ্য
বিশ্বে মৃত্যু
৫২,৯৮,০৯৫
ডিসেম্বর ৯, ২০২১
করোনা তথ্য
বিশ্বে আক্রান্ত
২৬,৮২,২৬,৮৩৫
ডিসেম্বর ৯, ২০২১
©মেঘনা নিউজ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত