রবিবার , ৬ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম :
হাতিয়া ইউনিয়নকে প্রাথমিক পর্যায়ে বাল্যবিয়ে মুক্ত ঘোষণা ঠাকুরগাঁওয়ে হোমিও প্যাথির এক ভূয়া চিকিৎসককে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা বগুড়ার আদমদীঘিতে মুখে মাস্ক না পড়ায় ৫ জনকে অর্থদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত সড়ক দূর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারে আর্থিক অনুদান প্রদান উলিপুরে ট্রাক,ট্যাংকলড়ী,কাভার্ড ভ্যান ও ট্রাক্টর,শ্রমিক ইউনিয়নের উপ কমিটির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত গৌরীপুরে জমিসংক্রান্ত বিরোধে গৃহবধূ খুন চাঁপাইনবাবগঞ্জে দিনব্যাপী ফ্রী চক্ষু চিকিৎসা ক্যাম্প অনুষ্ঠিত চাঁপাইনবাবগঞ্জে দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির উদ্বোধন মৌলভীবাজারে লেখক ফোরামের উদ্দোগে মাস্ক বিতরন অনুষ্ঠিত ওসমানী হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা বন্ধ বিদেশযাত্রীরা বিপাকে

বগুড়ার সান্তাহারে তিন যুবকের বুদ্ধিমত্তায় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেল মালবাহী ট্রেনটি




হাতে লাল রংয়ের টি শার্ট দেখিয়ে ট্রেন দুর্ঘটনা রুখে দিয়েছে তিন যুবক। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহার ও রাণীনগর স্টেশনের কেল্লাপাড়া রেলব্রিজ থেকে ১২০ ফুট দক্ষিণে ঘটনাটি ঘটে। রেলওয়ে লাইন ভাঙা দেখতে পেয়ে লাল টি শার্ট দেখিয়ে মালবাহী ট্রেনটি থামিয়ে দেয় তিন যুবক। ফলে তিন যুবকের বুদ্ধিমত্তায় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায় ট্রেনটি।

মালবাহী ওই ট্রেনের চালক সুজাউদৌলা জানান, তিন যুবক লাল রঙের গেঞ্জি দিয়ে ট্রেন থামানোর সংকেত দিচ্ছিল। লাল কাপড় দেখে তিনি ট্রেনটি গতিরোধ করে থামিয়ে দেন। এ সময় তিনি নিচে নেমে তাদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারেন সামনে রেললাইন ভাঙা রয়েছে। এ তিন যুবকের সাহসিকতা ও দূরদর্শিতায় দুর্ঘটনার কবল থেকে ট্রেনটি রক্ষা পায়।

যুবক সারোয়ার, রনি ও নাঈম হোসেন জানায়, প্রতিদিনের মতো তারা ওই দিন বিকেলে রেললাইন ধরে হাঁটাহাটি করছিল। তারা কেল্লাপাড়া রেল ব্রিজের দিকে যাওয়ার সময় দেখতে পায় রেল লাইন ভাঙা। এর কয়েক মিনিটের মধ্যেই দেখে সামনের দিক থেকে একটি ট্রেন চলে আসছে। তারা জানতো লাল কাপড় দেখালে ট্রেন থেমে যায়। কিন্তু লাল কাপড় না থাকলেও একজনের কাছে থাকা লাল টি শার্ট উঁচিয়ে ট্রেনটি দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা করতে সক্ষম হয়। সাহসী এই তিন যুবক উপজেলার সান্তাহার ইউনিয়নের পাল্লাগ্রামের জবেদ প্রামানিকের ছেলে সারোয়ার, একই গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে রনি হোসেন ও আলমের ছেলে নাঈম হোসেন। স্থানীয় ইব্রাহীম, ওমর ফারুক ও লোকমান বলেন, এই লাইনে দুপুর পর্যন্ত বেশ কয়েকটি ট্রেন চলাচল করে। দুপুরের পর হঠাৎ এ ঘটনাটি ঘটে। তিন যুবক বিষয়টি না জানতে পারলে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যেত। সান্তাহার রেলওয়ে স্টেশনের পরিবহন পরিদর্শক হাবিবুর রহমান জানান, পার্বতীপুর-খুলনা রেলপথের সান্তাহার জংশন স্টেশনের অদূরে কেল্লাপাড়া রেল ব্রিজ এলাকায় ৮ ইঞ্চি রেললাইন ভেঙে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত অংশ মেরামত কাজ শুরু করা হয়। যে কারণে বিকেল থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে। লাইন মেরামতে দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আবারও ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়। কাটা লাইনটির বিষয় জানতে চাইলে সান্তাহার রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী আফজাল হোসেন বলেন, রেল লাইনের ওই অংশ অনেক পুরাতন হওয়ায় ওই স্থানে ভেঙে গেছে। খবর পেয়ে পিডব্লিউআই বিভাগ ওই অংশের রেল পরিবর্তন করেছেন।

 

 

 

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত




ই-মেইলে সর্বশেষ সংবাদ

বিনামূল্যে সর্বশেষ সংবাদ সরাসরি আপনার ই-মেইলে পেতে আজই সাবস্ক্রাইব করুন!

তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক।
আমাদের গোপনীয়তার নীতি




এক ক্লিকে জেনে নিন বিভাগীয় খবর




করোনা তথ্য
দেশে আক্রান্ত
১,৯৯,৩৫৭
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
দেশে সুস্থ
১,০৮,৭২৫
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
দেশে মৃত্যু
২,৫৪৭
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
বিশ্বে মৃত্যু
৫,৯৩,০৭২
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
বিশ্বে আক্রান্ত
১,৩৯,২১,৬৯৯
Developed By Ariful
©মেঘনা নিউজ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত