রবিবার , ২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম :
এবার ঘরে ঘরে মৌসুমী ফল দিলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী জাকির হোসেন দাউদকান্দির গোমতী নদীতে চাঁদাবাজি বন্ধের দাবি জানিয়েছেন জাহাজ মালিক সমিতি ভোলায় দুটি মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ গৌরীপুর শিল্পীগোষ্ঠীর সভাপতি আলী মনসুরের মৃত্যুতে শোক ও স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত সাপাহারে হতাশা কাটাতে জমে উঠেছে অনলাইন আম ব্যবসা সাপাহারে সফল উদ্যোক্তার রপ্তানি যোগ্য আম্রপালি আম গেল ইংল্যান্ডে সাপাহারে মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার নতুন ঘর পাবার অপেক্ষায় ৬০ জন গৃহহীন পরিবার পরিবারের জিম্মায় আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান কুরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে শেষ করলো দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী  গৌরীপুরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রশিদের দাফন সম্পন্ন

গৌরীপুর সরকারি কলেজের ৬টি গাছ বিধিমালা উপেক্ষা করেই বিক্রয়




বিধিমালা উপেক্ষা করেই নামমাত্র মূল্যে গাছ বিক্রি করে দিয়েছে ময়মনসিংহের গৌরীপুর সরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষ। রবিবার এ গাছগুলো বিক্রয় করা হয়। এর প্রতিবাদে কলেজের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে ফুঁসে ওঠে, অনুষ্ঠিত হয় মানববন্ধন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক কাঠ ব্যবসায়ী জানান, সরকারি কলেজের ৬টি গাছের বাজার মূল্য দেড় লাখ টাকার বেশি, অথচ মাত্র ৭৩ হাজার টাকায় গাছগুলো বিক্রি করা হয়েছে।


কলেজ কর্তৃপক্ষ ১৭টি সিডিউল বিক্রয় করলেও সিন্ডিকেটের মাধ্যমে ম্যানেজ হয়ে দরদামে অংশগ্রহণ করেনি সবাই।

বিধিমালা অনুযায়ী পদাধিকার বলে উপজেলার যে কোন সরকারি গাছ বিক্রয় কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সদস্য সচিব বন কর্মকর্তা (রেঞ্জার)। অথচ গৌরীপুর সরকারি কলেজের গাছ বিক্রির টেন্ডারের বিষয়টি জানতেন না তারা কেউই। টেন্ডারের সময় উপস্থিত থাকতে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানোও হয়নি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বন কর্মকর্তাকে ।

গৌরীপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তাদির হাসান খান তুষার বলেন, এই গাছগুলো সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে বিক্রয় করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। আমি সাধারণ ছাত্র ছাত্রী ও ছাত্র লীগের পক্ষ থেকে এই টেন্ডার বাতিলের দাবি জানাচ্ছি।

কলেজের ছাত্র ও বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন উপজেলা কমিটির সভাপতি এনামুল হাসান অনয় জানান, কলেজ বন্ধ থাকার সুযোগে কর্তৃপক্ষ কোনরকম নিয়ম না গাছগুলো বিক্রয় করে দিয়েছে।

গৌরীপুর উপজেলা বন কর্মকর্তা (রেঞ্জার) মোঃ লুৎফুর রহমান জানান, কয়েকদিন আগে কলেজের কিছু গাছের মূল্য নির্ধারণ করে দিতে আমাদের বলা হয়। আমরা গাছগুলোর একটি প্রাথমিক মূল্যও নির্ধারণ করে দিয়েছিলাম। কিন্তু গাছ বিক্রির টেন্ডার আহ্বান ও বিক্রি করার ব্যাপারে কিছুই জানানো হয়নি। গাছগুলো হলো ২টি কৃঞ্চচুড়া, ১টি বড় মেহগনি ও ৩টি সেগুন। যার প্রাথমিক মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিলো ৭১ হাজার ৯৯৯ টাকা। নিয়মানুযায়ী সরকারি গাছ বিক্রির সময় বন বিভাগের একজন প্রতিনিধি সেখানে উপস্থিত থাকতে হয়। কিন্তু গৌরীপুর সরকারি কলেজে গাছ বিক্রির এসব নিয়ম মানা হয়নি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সরকারি গাছ বিক্রয় কমিটির সভাপতি হাসান মারুফ জানান, সরকারি কলেজের ৬টি গাছের মূল্য গৌরীপুর বন বিভাগ থেকে নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে, এ পর্যন্তই আমি জানি। টেন্ডারের সময় আনুষ্ঠানিকভাবে আমাদের জানানো হয়নি। পরে শুনলাম গাছ বিক্রির প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছে।

গৌরীপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মিল্টন ভট্টাচার্য বলেন, নিয়ম মেনেই গাছ বিক্রয় করা হয়েছে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত




ই-মেইলে সর্বশেষ সংবাদ

বিনামূল্যে সর্বশেষ সংবাদ সরাসরি আপনার ই-মেইলে পেতে আজই সাবস্ক্রাইব করুন!

তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক।
আমাদের গোপনীয়তার নীতি




এক ক্লিকে জেনে নিন বিভাগীয় খবর




করোনা তথ্য
দেশে আক্রান্ত
৮,৪৪,৯৭০
১৯ জুন, ২০২১
করোনা তথ্য
দেশে সুস্থ
৭,৭৮,৪২১
জুন ১৯, ২০২১
করোনা তথ্য
দেশে মৃত্যু
১৩,৩৯৯
জুন ১৯, ২০২১
করোনা তথ্য
বিশ্বে মৃত্যু
৩৮,৬৯,০৪৭
জুন ১৯, ২০২১
করোনা তথ্য
বিশ্বে আক্রান্ত
১৭,৮৭,০০,১৭১
জুন ১৯, ২০২১
©মেঘনা নিউজ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত