সোমবার , ২৩শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম :
চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভূমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে মানবতার সেবায় বন্যার্ত সিলেটবাসীর পাশে চট্টগ্রামবাসী গৌরীপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল হাসানকে পুনারায় নির্বাচিত করতে চায় ওয়ার্ডের জনগণ চাঁপাইনবাবগঞ্জে টাকার প্রলোভন দেখিয়ে পাঁচ বছরের শিশুকে বলাৎকার ২০২৩ থেকে চালু হতে পারে ইলন মাস্কের স্টারলিংক ইন্টারনেট সেবা সোনা প্রতি ভরির দাম ৮২ হাজার ৪৬৪ টাকা বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হলো বোকাইনগর ইউপি সংবাদপত্র এজেন্ট এসোশিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতার কর্মময় জীবন নিয়ে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত গৌরীপুরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে সওজ
মোট আক্রান্ত

১৯,৫৩,০১২

সুস্থ

১৮,৯৯,৪১৯

মৃত্যু

২৯,১২৭

১৫ মে, ২০২২ | ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর

উলিপুরে ব্যক্তিমালিকানা জমিতে আশ্রয়ণের ঘর নির্মাণের অভিযোগ

<script>” title=”<script>


<script>

কুড়িগ্রামের উলিপুরে ব্যক্তি মালিকানাধীন জায়গায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভূক্তভোগি ওই ব্যক্তি উপজেলা নিবার্হী অফিসার ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

জমির মালিক আব্দুল খালেকের দাবি, ক্রয়সূত্রে ওই ২১শতক জমির মালিক তিনি। ভূলবশতঃ তা খাস খতিয়ানের আওতাভূক্ত হয়েছে। এ বিষয়ে তিনি আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনাটি উপজেলার দলদলিয়া ইউনিয়নে।

মামলা ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ১৯৬৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর দলদলিয়া ইউনিয়নের কাজী পাড়া গ্রামের মোশারফ হোসেনের কাছ থেকে কবলা দলিলে ২১শতক জমি ক্রয় করেন, প্রতিবেশি মৃত বছির উদ্দিনের পুত্র আব্দুল খালেক। এসএ খতিয়ানে ওই জমি মূল মালিকের নামে রেকর্ড থাকলেও ক্রয়ের পর আরএস খতিয়ানে আব্দুল খালেকের নামে রেকর্ডভূক্ত না হওয়ায় তা খাসভূক্ত হয়ে যায়।

জমির মালিক আব্দুল খালেকের পুত্র নুূর মোহাম্মদ বলেন, দাগ নং-৯৪০ এ ২১ শতক জমি আমার বাপ ক্রয়সূত্রে মালিক। দীর্ঘদিন ধরে আমরা ভোগ দখল করে আসছি, হঠাৎ শুনি এই জমি নাকি খাস হয়ে গেছে। এই জমিতে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। শুধু তাই নয় ভুল করে বিরোধপূর্ণ জমির পাশে থাকা ৯৩৭ নং দাগে ১৫ শতক জমিতেও আশ্রয়ণের ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। সেখানে বড় বড় গাছ ও বাঁশঝাড় ছিল, তা সব কেটে সাবার করা হয়েছে। ভূমি অফিসের লোকজন আমাদের কোন কথা শোনেনি।

তবে এ বিষয়ে আদালতে মামলা দায়ের করলে, গত ১৮ জানুয়ারী (মঙ্গলবার) আদালত ১৫দিনের সময় বেঁধে দিয়ে উপজেলা নিবার্হী অফিসারকে (ইউএনও) কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেন।

সরেজমিনে গত শনিবার ওই এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, বিরোধপূর্ণ জমিতে আশ্রয়ণের ঘর নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। আশপাশে বাঁশ গাছের স্তুপ পড়ে আছে। এসময় কয়েকজন বাসিন্দা জানান, কোনদিন তো শুনি নাই এ জমি খাসের। এখন শুনতেছি এটা নাকি খাসের জমি।

দলদলিয়া ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা আহসান আহম্মেদ বলেন, ওই জমি খাস হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। পরে সার্ভেয়ার সেখানে সীমানা নিধার্রণ করে দিয়েছেন।

এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশরাফুল আলম রাসেল বলেন, কুড়িগ্রামে মিটিংএ আছি এ ব্যাপারে পরে কথা হবে।

ইউএনও বিপুল কুমার বলেন, আদালতের নোটিশ পাওয়ার পর আমরা সুস্পষ্টভাবে জবাব দিয়েছি। তবে উনি যেসব অভিযোগ করতেছেন তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা গোলাম হোসেন মন্টু বলেন, এসিল্যান্ড সেখানে যেভাবে অত্যাচার শুরু করছে, একটি স্বাধীন দেশের স্বাধীন নাগরিক হয়ে কোনভাবেই তা মেনে নেয়া যায় না। সরকারি ঘর নির্মাণে, জায়গা না থাকলে, জমি কিনে ঘর নির্মাণ করার নির্দেশনা আছে। কিন্ত অনেকটা জোর জবরদস্থি করে সেখানে ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

GloboTroop Icon
পাঠকের মতামত

ই-মেইলে সর্বশেষ সংবাদ

বিনামূল্যে সর্বশেষ সংবাদ সরাসরি আপনার ই-মেইলে পেতে আজই সাবস্ক্রাইব করুন!

তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক।
আমাদের গোপনীয়তার নীতি




এক ক্লিকে জেনে নিন বিভাগীয় খবর




করোনা তথ্য
দেশে আক্রান্ত
১৯,৫৩,০১২
১৫ মে, ২০২২
করোনা তথ্য
দেশে সুস্থ
১৮,৯৯,৪১৯
মে ১৫, ২০২২
করোনা তথ্য
দেশে মৃত্যু
২৯,১২৭
মে ১৫, ২০২২
করোনা তথ্য
বিশ্বে মৃত্যু
৬২,৮৭,৯৯৫
মে ১৫, ২০২২
করোনা তথ্য
বিশ্বে আক্রান্ত
৫২,১০,১৩,৪৬৫
মে ১৫, ২০২২
©মেঘনা নিউজ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত