ঢাকা (বিকাল ৩:০৯) বুধবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ ইং
শিরোনাম
Meghna News রক্ষকের বেশে এক ব্যাংক ম্যানেজার যখন ভক্ষক! Meghna News বর্ণাঢ্য আয়োজনে পহেলা বৈশাখ উদযাপিত Meghna News নববর্ষ উদযাপনে কুমিল্লা-১ আসনের সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর Meghna News ঈদ উপহার হিসেবে শিশুদের বই দিলো “সাংবাদিক শরীফ প্রধান পাঠাগার” Meghna News কাতার প্রবাসী ঐক্য পরিষদ সুনামগঞ্জ এর কমিটি গঠিত Meghna News দাউদকান্দিতে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে ড.মারুফের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় Meghna News দাউদকান্দিতে নিখোঁজের দুদিন পর ডোবা থেকে অটো চালকের মরদেহ উদ্ধার Meghna News টিম গ্রুপের কর্পোরেট অফিসার আসিফকে ‘সম্মাননা স্মারক’ প্রদান Meghna News শরীফ প্রধান পাঠাগারে কবি মোহাম্মদ দিদারের বই উপহার Meghna News দাউদকান্দিবাসীর সঙ্গে এমপি আব্দুস সবুরের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়

৫৪ ধারাতেই পুলিশের সকল ক্ষমতা

<script>” title=”<script>


<script>

বাচ্চাদের ভয় দেখানোর জন্য একসময় ‘লাঠি’ শব্দটা ব্যবহার করা হত। তবে বর্তমানে ভয় দেখানোর জন্য “পুলিশ” শব্দটাই যথেষ্ট। পুলিশ দেখলে কি শুধু ছোটরা ভয় পায়? কিশোর, যুবক, বৃদ্ধ, সকল পেশা-শ্রেনীর মানুষই ভয় পায়। ভয়টা অবশ্য অহেতুক হয়রানীর। বিরোধী দলীয় রাজনীতিবিদ হলে পুলিশে ভয় সবচেয়ে বেশী, অবশ্য সাধারন মানুষও পুলিশকে এত ভয় পায় কিনা তা নিয়ে সন্দেহ আছে? পুলিশকে নিয়ে গ্রামেগঞ্জে সাধারন মানুষের মাঝে একটা প্রবাদ প্রচলিত আছে, ‘আকাশে যত তারা পুলিশের তত ধারা’, আসলে কি তাই? তবে কি পুলিশকে আইন এত বেশী ক্ষমতা দিয়েছে? দেখা যাক আইন কি বলে-

১৮৭২ সালের সাক্ষ্য আইনে পুলিশকে মোটামুটি বিশ্বাসের অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে এবং এই আইনের ধারা ২৪-২৯ এর মূল বক্তব্য হল পুলিশের নিকট দেয়া জবানবন্দি কোন আদালতে সাক্ষ্য হিসাবে গ্রহণ করা যাবেনা। যদিও মামলার তদন্তভার পুরোপুরি পুলিশের উপর ন্যস্ত এবং তার দেয়া তদন্ত রিপোর্ট দিয়েই কিন্তু আদালতে ফৌজদারি মামলার বিচার হয়।

বাংলাদেশে যত আইন আছে এবং সে মতে যত অপরাধ আছে সব ক্ষেত্রেই আদালতের ক্ষমতা আছে অপরাধীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করার, কিন্তু সবক্ষেত্রে পুলিশ আসামীকে বা অপরাধীকে গ্রেফতার করার ক্ষমতা রাখেনা।

আশ্চর্য হলেও সত্যি এই যে গ্রেফতার বিষয়ে ৫৪ ধারা একটা কমপ্লীট আইন, পুলিশের গ্রেফতার করার যত ক্ষমতা সব এই একটা ধারাতেই। ৫৪ ধারার ক্ষমতা ব্যতীত পুলিশ কোন ব্যক্তিকে কখনো গ্রেফতার করতে পারেনা, এই বিষয়ে আইনজীবী, আদালত ও সাধারণ মানুষ সবার মধ্যেই একটা ভুল ধারণা আছে। একটা বিষ বিহীন সাপ যেমন কামড়াতে পারবে, ভয় দেখাতে পারবে কিন্তু মেরে ফেলতে পারবে না তেমনি ৫৪ ধারার ক্ষমতা ব্যতীত পুলিশও সব করতে পারবে কিন্তু আসামী গ্রেফতার করতে পারবে না। ৯টি বিশেষ শ্রেণীর অপরাধীদের গ্রেফতার করতে পারে পুলিশ ৫৪ ধারার অধীনে, এই ৯ শ্রেনীর অপরাধীকে গ্রেফতার করার ক্ষেত্রে পুলিশের আদালতের আদেশ লাগেনা, অবশ্য এই ৯ শ্রেনীর বাইরে খুব কমই অপরাধী আছে।

এবার জেনে নেওয়া যাক সকল পুলিশ গ্রেফতার করতে পারে কিনা? উত্তর হচ্ছে, না। আমি এ লেখায় যতবারই পুলিশ শব্দটা ব্যবহার করেছি আইন সে জায়গাগুলোতে বারবার পুলিশ অফিসার শব্দটা ব্যবহার করেছে। পুলিশ অফিসার শব্দটির ব্যাখ্যা পুলিশ রেগুলেশন্স অব বেঙ্গল, ১৯৪৩ বা সংক্ষেপে পিআরবি’র কোথাও নেই। কিন্তু পুলিশ অফিসার বলতে কাদের বুঝায় তার একটা আভাষ পাওয়া যায় ফৌজদারি কার্যবিধির ধারা- ৪(পি) এ, মতে কনস্টেবল ছাড়া তার উপরের পদবীধারী বাকি সকল পুলিশকে অফিসার হিসাবে গণ্য করা হয়।

আসলে ৫৪ ধারাই সব, গ্রেফতার বিষয়ে পুর্ণাঙ্গ আইন। পুলিশকে দন্ডবিধির অপরাধে কাউকে গ্রেফতার করতে হলে ৫৪ ধারা মতেই করতে হয়। আর বিশেষ আইনসমূহ অনুসারে গ্রেফতার করতে হলে ৫৪ ধারা ছাড়া আর কোন উপায়ন্তর নাই। কারণ এই সমস্ত আইনসমূহে গ্রেফতার সম্পর্কিত বিধানে একটাই কথা লিখা থাকে আর তা হল “এই আইনের অধীনে অপরাধগুলো হবে আমলযোগ্য” আর আমলযোগ্য অপরাধে গ্রেফতার করতে হলে অবশ্যই ৫৪ ধারা মতেই করতে হবে।

 

লেখক; অ্যাডভোকেট ইজাজুল ইসলাম তানভীর

উপ – পরিচালক মানুষের অধিকার ফাউন্ডেশন

প্রকাশক-আইন নথি

শেয়ার করুন

GloboTroop Icon
পাঠকের মতামত

Meghna Roktoseba




এক ক্লিকে জেনে নিন বিভাগীয় খবর




© মেঘনা নিউজ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by ShafTech-IT