বুধবার , ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নড়াইলে গরু চোর সন্দেহে দুজনকে পিটিয়ে হত্যা

নড়াইলে গরু চোর সন্দেহে দুজনকে পিটিয়ে হত্যা

<script>” title=”<script>


<script>

গরু চোর সন্দেহে দুজনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী। নড়াইল সদর উপজেলার কলোড়া ইউনিয়নের বীড়গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সোমবার(২৬ডিসেম্বর) সকালে কাড়ার বিল থেকে মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, রবিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে কলোড়া ইউনিয়নের বীড়গ্রামের রেবো বিশ্বাসের বাড়িতে ৬-৭ জনের চোরচক্র গরু চুরি করতে যায়। গোয়াল থেকে গরু নিয়ে যাবার সময় একটি বাছুর ডাকাডাকি শুরু করে। বাছুরে ডাকে গরুর মালিক রেবো বিশ্বাসের ঘুম ভেঙ্গে যায়। তখন তিনি বেরিয়ে এসে গোয়ালে দুটি গরু দেখতে পায়নি। তখন চোর চোর বলে চিৎকার দিলে প্রতিবেশিরা লাঠিসোটা নিয়ে বেরিয়ে আসে। তখন চোরেরা পালানোর চেষ্টা করে। পরে গস্খামবাসীরা ধাওয়া করলে চোরেরা বীড়গ্রামের উত্তরপাশের বিলে নেমে পড়ে। গ্রামবাসী নড়াইল-গোবরা-ফুলতলা সড়কের উজিরপুর পল্লীবিদ্যুতের উপ-কেন্দ্রের পূর্বপাশে একজন চোরকে ধরে ফেলে। অপর একজন চোরকে বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রের কিছুটা দুরে সরিষা ক্ষেতের মধ্যে গিয়ে ধরে ফেলে। বিক্ষুদ্ধগ্রামীবাসীর গনধোলাইয়ে দুজনেরই মৃত্যু হয়।

নিহত একজনের পকেটে একটি জাতীয় পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী তার নাম- মোঃ আসাদুল শেখ। পিতার নাম মোঃ গফুর শেখ। মাতার নাম আরোফা বেগম। ঠিকানা- গ্রাম জাড়িয়া বারুইডাঙ্গা, ডাকঘর-লখপুর-৯২৪১, ফকির হাট, বাগেরহাট। অন্যজনের পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে একই এলাকার বাসিন্দা হতে পারেন।

বীড়গ্রামের সুশীল বিশ্বাসের স্ত্রী রচনা বিশ্বাস জানান, এক মাস আগে প্রথমে তার একটি গরু চুরি হয়েছে। এরপর একই গ্রামের হরিচানের গরু চুরি হয়েছে। এছাড়া মুশুড়িয়াসহ বিভিন্ন এলাকার মানুষের গুরু চুরি হয়েছে। চোরেরা পিকআপ নিয়ে এসে গরু চুরি করে নিয়ে যায়।

উজিরপুর গ্রামের আমিরোন নেছা জানান, এলাকায় একের পর এক গরু চুরি হওয়ার কারনে এখন পাহারা দেয়া হচ্ছে। অধিকাংশ গরুর মালিক রাতে জেগে পাহারা দেয়। গত রাতে গরু চুরির ঘটনার পর গরুর মালিকের চিৎকারের সাথে সাথে লোকজন ঘর থেকে বেরিয়ে পড়েছে। এইসব চোরদের দিনের বেলায় ফেরী করতে এলাকায় দেখেছি।।

নড়াইল সদর থানার ওসি মোঃ মাহমুদুর রহমান বলেন, ‘নড়াইল সদর উপজেলার কলোড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় গরু চুরির ঘটনা ঘটছে। চোরদের ধরার জন্য এলাকাবাসীকে সচেতন করা হয়। অনেক এলাকায় পাহারা বসানো হয়। কলোড়া ইউনিয়নের বীড়গ্রামে গরু চুরির ঘটনায় এলাকাবাসী চোরদের ধরে গণধোলাই দিয়ে মেরে ফেলেছে। নিহত দুজনের মৃতদেহ নড়াইল সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।’

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

GloboTroop Icon
পাঠকের মতামত

ই-মেইলে সর্বশেষ সংবাদ

বিনামূল্যে সর্বশেষ সংবাদ সরাসরি আপনার ই-মেইলে পেতে আজই সাবস্ক্রাইব করুন!

তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক।
আমাদের গোপনীয়তার নীতি

Meghna Roktoseba




এক ক্লিকে জেনে নিন বিভাগীয় খবর




©মেঘনা নিউজ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত