শুক্রবার , ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম :
শাহবাজপুরে মাস্ক সপ্তাহ পালন কারেন্ট সুদে আটকা পড়ে সর্বশান্ত হচ্ছে গাইবান্ধার উপজেলার নাকাই হাটের অভাবী মানুষেরা গোলাপগঞ্জে ১ মানবপাচারকারী র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার বর্ষায় কাটে তাদের নির্ঘুম রাত,শীতে মুখে আসে হাসি বান্দরবানের লামায় ১৭ টি প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি সাপাহারে গল্পে গল্পে বেকারত্ব ঘোচাতে উদ্যোক্তা তৈরির মিটআপ অনুষ্ঠিত বড়লেখার ঐতিহ্যবাহী দৌলতপুর গ্রামের ইতিবৃত্ত সাপাহারে গরীবে নেওয়াজ ক্লিনিকে ভুল অপারেশনে প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিজয় দিবস উদযাপন কমিটির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত চাঁপাইনবাবগঞ্জে স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবীতে অবস্থান কর্মসূচী পালন

নাগরপুরে কর্মহীন দরিদ্রদের ঈদ উপহার দিলেন আব্দুল হাই




নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার সহবতপুর ইউনিয়নের ইরতা গ্রামের মরহুম করিম চেয়ারম্যানের বড় ছেলে মো. আব্দুল হাই ঘরে থাকা কর্মহীন দরিদ্রদের ঈদ উপহার হিসেবে নগদ টাকা প্রাদান করলেন।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিহত করতে সরকারি নির্দেশনায় দেশের সর্ব স্তরের মানুষ যখন ঘরে অবস্থান করছে। যার ফলে দিন এনে দিন খাওয়া দরিদ্র শ্রমিক ও বৃদ্ধ মানুষদের জীবনে ক্ষুধার কষ্ট নেমে এসেছে।

আর দুই দিন পরেই মুসলিমদের পবিত্র ঈদ। তাই ঈদের আনন্দ সবার সাথে ভাগকরে নিতে তাদের হাতে তুল দিয়েছেন নগদ টাকা। এলাকার মানুষদের মুখে ঈদের হাসি ফোটাতে মানবিকতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সরকারের পাশাপাশি নাগরপুরের প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী মো. আব্দুল হাই।

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও ব্যক্তিগত সুরক্ষার মাস্ক পরিহিত ২২৫ জন দরিদ্রদেরকে ২০ মে বুধবার ও ২১ মে বৃহস্পতিবার সকালে মরহুম করিম চেয়ারম্যানের বাসভবন সংলগ্ন ইতরতা মাদরাসা থেকে ঈদ উপহার দেয়া হয়েছে।

এদের মধ্যে সহবতপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের দরিদ্র শ্রমিক, বর্গা কৃষক, এতিম, বৃদ্ধ, নারী-পুরুষ। তাদের পরিস্থিতি বিবেচনা করে জন প্রতি ৫০০-৫০০০ টাকা হাতে তুলে দেন সাবেক চেয়ারম্যানের বড় ছেলে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. আব্দুল হাই।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, করোনা মোকাবিলায় সারা দেশের মানুষের মতোই সহবতপুরের মানুষ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করছে। বিগত মাসে সরকারের পাশাপাশি তাদের জন্য খাদ্য সহায়তা দিয়েছি। আসন্ন ঈদে প্রতিটি মানুষের প্রয়োজন ভিন্ন, এদের কারো বাড়িতে হয়তো চাউল আছে কিন্তু তরকারি নেই। আবার কেউ হয়তো তার বাচ্চার জন্য খাদ্য বা পোশাক কিনতে পারছে না। তাই আমার ইউনিয়নের এসব লোকদের হাতে নগদ টাকা দিয়েছি।

তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী যাতে তারা খরচ করতে পারে। গ্রামের দরিদ্র মানুষদের অর্থিক বিষয় বিবেচনা করে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে দুই দিনে মাস্ক পরিহিত ২২৫ জনকে জন প্রতি ৫ শত টাকা থেকে ৫ হাজার টাকা তাদের হাতে দিয়েছি।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, সহবতপুর বাজার বনিক সমিতির সাবেক সভাপতি মো. আলাল উদ্দিন, সমাজ সেবক মো. সাগর মিয়া। মোঃ আবু বক্কার সমাজ সেবক

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত




ই-মেইলে সর্বশেষ সংবাদ

বিনামূল্যে সর্বশেষ সংবাদ সরাসরি আপনার ই-মেইলে পেতে আজই সাবস্ক্রাইব করুন!

তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক।
আমাদের গোপনীয়তার নীতি




এক ক্লিকে জেনে নিন বিভাগীয় খবর




করোনা তথ্য
দেশে আক্রান্ত
১,৯৯,৩৫৭
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
দেশে সুস্থ
১,০৮,৭২৫
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
দেশে মৃত্যু
২,৫৪৭
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
বিশ্বে মৃত্যু
৫,৯৩,০৭২
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
বিশ্বে আক্রান্ত
১,৩৯,২১,৬৯৯
Developed By Ariful
©মেঘনা নিউজ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত