বৃহস্পতিবার , ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং
সিলেটের চন্ডিপুলে মারমুখী অবস্থানে তাবলিগের দু’পক্ষ, থমথমে পরিস্থতি

সিলেটের চন্ডিপুলে মারমুখী অবস্থানে তাবলিগের দু’পক্ষ, থমথমে পরিস্থতি

মোঃ ইবাদুর রহমান জাকির, সিলেট প্রতিনিধি : সা’দ পন্থীদের ইজতেমা রুখে দিতে দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুলে আলেম পক্ষের অবস্থান চলছে। বিরাজ চরছে থমথমে অবস্থা। তবে যে কোনো পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রস্তুত রয়েছে পুলিশ।এর আগে সকাল ১১টার সিলেটে তাবলিগের দু’পক্ষের উত্তেজনা প্রশমিত করতে প্রশাসন দু’পক্ষকে নিয়ে আলোচনায় বসার চেষ্টা করলেও কোনো সমাধান আসেনি। আজ শুক্রবার (সকাল ১১টায়) এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত প্রশাসন দু’পক্ষকে নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেছিলেন। খবরটি নিশ্চিত করেছেন দক্ষিণ সুরমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল ফজল।তিনি বলেন, দক্ষিণ সুরমার খোজারখলা তাবলিগী মারকাজে দু’পক্ষকে নিয়ে বৈঠক বসেন। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দু’পক্ষের প্রতিনিধি দল এবং জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ। তবে বৈঠকে কোনো পক্ষ সমঝোতায় যেতে রাজি হয়নি।এদিকে, সকাল ১১ টার দিকে সাদ বিরোধীরা দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুল পয়েন্টে একত্রিত হয়ে স্লোগান দিতে থাকে। এসময় সাদপন্থীরা বদিকোনা থেকে অর্ধশতাধিক মোটরসাইকেলযোগে মিছিল নিয়ে বের হলে পুলিশ তাদের ব্যারিকেড দিয়ে আটকায়। এসময় দুপক্ষের মধ্যে তুমুল উত্তেজনা বিরাজ করে। পুলিশ তাৎক্ষণিক দু’পক্ষকেই নিভৃত করে। তবে এখনও থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে এবং দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি খায়রুল ফজলের নেতৃত্বে পুলিশের একটি বড় দল চন্ডিপুলে অবস্থানে করছে। উল্লেখ্য, গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে সিলেটে তাবলিগের দুই পক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে। দক্ষিণ সুরমার বদিকোনায় তাবলিদের সা’দ পন্থীদের এক আয়োজনকে ঘিরে সৃষ্টি হয়েছে এ উত্তেজনা। এদিকে, এই আয়োজনকে ‘সিলেট জেলা ইজতেমা’ আখ্যা দিয়ে বৃহস্পতিবার দিনভর ফেসবুকে প্রচারণা চালান সাদপন্থী অনেকেই। বৃহস্পতিবার বাদ মাগরিব ‘আব্দুল্লাহ শাকিল’ নামের এই আইডি থেকে বদিকোনার এই আয়োজনকে ‘ইজতেমা’ উল্লেখ করে তাদের বক্তা আলেম ওয়াসিফুল ইসলামের উদ্বোধনী বয়ান অডিও লাইভ প্রচার করা হয়। এদিকে, এসব বিষয় ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে সিলেটের আলেম সমাজ ও তাবলীগের অপরপক্ষের সাথীদের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে উত্তেজনা। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার বাদ এশা সিলেটের তাবলিগী মারকাজ খোজারখলায় মদিনাতুল উলুম দারুস সালাম মাদরাসার মুহতামিম ও জেলা উপদেষ্টা শায়খুল হাদিস মাওলানা ওলীউর রহমানের সভাপতিত্বে এক পরামর্শসভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলার জিম্মাদার সাথী ও বিভিন্ন মাদরাসার দায়িত্বশীলগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়- বদিকোনায় মাওলানা সাদ অনুসারী তাবলিগ জামাআতের এই আয়োজনের বিরুদ্ধে এবং এটি বন্ধের দাবিতে আজ শুক্রবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুল পয়েন্টে অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করা হবে। পরবর্তীতে সিলেট আলিয়া মাদরাসা মাঠে আঞ্জুমানে খাদিমুল ক্বোরআন আয়োজিত তাফসির মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে আল্লামা নুরুল ইসলাম ওলিপুরী এই কর্মসূচি পালন করার জন্য সিলেটের ধর্মপ্রাণ মানুষদের আহ্বান জানান এবং কর্মসূচিতে নিজে উপস্থিত থাকবেন বলে ঘোষণা দেন। এ বিষয়ে তাঁর কাছে জানতে মোবাইল ফোন নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। তবে আল্লামা ওলিপুরীর ছেলে মাওলানা কামরুল ইসলাম বৃহস্পতিবার রাতে জানান, এ বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।এ প্রসঙ্গে তেতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. উসমান আলী এ প্রতিবেদককে বলেন, বদিকোনার তাবলিগি মারকাজের মুরব্বিরা এখানে তারা একটি দোয়ার মাহফিলের আয়োজন করেছেন বলে আমাদের দাওয়াত দিয়েছেন। ‘ইজতেমা’ বলে দাওয়াত দেননি। অপরপক্ষের কর্মসূচির বিষয়েও তিনি কিছু জানেন না বলে এ প্রতিবেককে জানান।বদিকোনার আয়োজনের বিষয়ে মাওলানা সাদ অনুসারীদের দায়িত্বশীল সুয়েজ আফজল খানের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।সার্বিক বিষয়ে জানতে চাইলে দক্ষিণ সুরমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল ফজল বৃহস্পতিবার রাতে বলেন, এটি একটি দোয়ার মাহফিল। এ মর্মে লিখিত অনুমতি নিয়েছেন আয়োজকরা। এটি একটি ধর্মীয় ভালো কাজ বলে আমরাও অনুমতি প্রদান করেছি।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এক ক্লিকে জেনে নিন বিভাগীয় খবর

©মেঘনা নিউজ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by Ateam IT Solution