রবিবার , ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম :
আলমডাঙ্গা বণিক সমিতির নির্বাচনে সাধারন সম্পাদক প্রার্থী কামাল হোসেন ন্যাক্কারজনক পাশবিক এই ঘটনায় আমি ক্ষুব্ধ ও ব্যাথিত নাদেল এমসি কলেজে স্বামীকে বেঁধে গণধর্ষণ গ্রেফতার নেই একজনও এমসি কলেজের সাবেক তিন ছাত্র সংসদের দায়িত্বশীলের বিবৃতি চরফ্যাশনে সাবেক ছাত্রদল সভাপতি শহীদ আব্দুর রাজ্জাকের ৫ম মৃত্যু বার্ষিকীতে ছাত্রদলের কবর জিয়ারত ও দোয়া মুনাজাত করোনায় বাড়ছে বাল্যবিবাহ চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রকাশ্যে মাদক সেবনের অপরাধে গ্রেফতার ১১ মাদকসেবী চাঁপাই গ্রামীণ পাবসস’র ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনের দুই প্যানেলে প্রার্থী ২২ জন চাঁপাইনবাবগঞ্জে অর্থের বিনিময়ে ধর্ষণের রফাদফা করার ক্ষোভে কিশোরীর আত্মহত্যা গৌরীপুরে সেফটিক ট্যাংকে নেমে দু’জনের মৃত্যু
মোট আক্রান্ত

১,৯৯,৩৫৭

সুস্থ

১,০৮,৭২৫

মৃত্যু

২,৫৪৭

ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর

বীরশেষ্ঠ মোস্তফা কামালের মায়ের মৃত্যুতে কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা নয়নের শোক




বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামালের বীরমাতা মালেকা বেগম (৯৬) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন )।

মঙ্গলবার(৮সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সে ভোলা সদর উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের মৌটুসী গ্রামের নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন।

বাদ আসর বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল ঈদগাহ ময়দানে মরহুমার জানাজা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হবে।

বীরমাতার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় বিএনপি’র নিবার্হী কমিটির সদস্য ও কেন্দ্রীয় জাতীয়তাবাদী যুবদলের সিনিয়র যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ভোলার চরফ্যাশনের কৃতিসন্তান মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম নয়ন। তিনি এক শোক বার্তায় মরহুমের আত্মার শান্তি কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।

বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামালের মা মালেকা বেগমকে (৯৬) গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় গত ১৮ আগস্ট সকালে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এসময় তিনি বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। পরে এয়ারঅ্যাম্বুলেন্সে করে দ্রুত তাকে ঢাকা সেনাবাহিনীর অধীনে সিএমএইচ-এ ভর্তি করানো হয়।

উল্লেখ্য, ১৯৪৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর ভোলার দৌলতখান উপজেলার হাজীপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল। বাবা হাবিবুর রহমান ছিলেন হাবিলদার। ১৯৮২ সালে মেঘনা নদীর ভাঙনে দৌলতখানের বাড়িটি বিলীন হয়ে গেলে সদর উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের মৌটুপী গ্রামে চলে আসেন তার পরিবারের সদস্যরা। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৫৫ পদাতিক ডিভিশন সেখানে ৯২ শতাংশ জমিতে ’শহীদ স্মরণিকা’ নামে একতলা পাকা ভবনটি নির্মাণ করে পরিবারটিকে পূনর্বাসন করেছে।

প্রয়াত হাবিলদার হাবিবুর রহমানের দুই ছেলে ও তিন মেয়ের মধ্যে বীরশেষ্ঠ মোস্তফা কামাল ছিলেন সবার বড়।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত




ই-মেইলে সর্বশেষ সংবাদ

বিনামূল্যে সর্বশেষ সংবাদ সরাসরি আপনার ই-মেইলে পেতে আজই সাবস্ক্রাইব করুন!

তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক।
আমাদের গোপনীয়তার নীতি




এক ক্লিকে জেনে নিন বিভাগীয় খবর




করোনা তথ্য
দেশে আক্রান্ত
১,৯৯,৩৫৭
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
দেশে সুস্থ
১,০৮,৭২৫
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
দেশে মৃত্যু
২,৫৪৭
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
বিশ্বে মৃত্যু
৫,৯৩,০৭২
Developed By Ariful
করোনা তথ্য
বিশ্বে আক্রান্ত
১,৩৯,২১,৬৯৯
Developed By Ariful
©মেঘনা নিউজ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত